শ্রীলংকার বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা খেলতে চান টাইগাররা



CRICKET-WC-2015-BANবিশ্বকাপ ক্রিকেটে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে শক্তিশালী শ্রীলংকার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। বৃহস্পতিবার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে নয়টায় শুরু হবে ম্যাচটি। অপেক্ষাকৃত শক্তিশালী লংকানদের বিপক্ষে নিজেদের সেরাটা দিতে আত্মবিশ্বাসী মাশরাফি বাহিনী। আর মাঠের লড়াইয়ে বাংলাদেশে কোন ছাড় দিতে নারাজ শ্রীলংকা।

টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১০৫ রানের বড় জয়ে আত্মবিশ্বাসের রসদ খুঁজে পায় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ ঘূর্ণিঝড় মার্সিয়ার কারনে পরিত্যাক্ত হয়। তবে, নিজেদের ঝুলিতে এক পয়েন্ট যোগ হওয়ায় মানসিকভাবে কিছুটা উজ্জীবিত টাইগাররা।  এবার নতুন মিশন শ্রীলংকার বিপক্ষে। দলে আল-আমিন কেলেংকারি আর মুশফিক ইনজুরির শংকাকে পেছনে ফেলে এখন ম্যাচেই মনোসংযোগ মাশরাফি বিন মর্তুজার। ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলপতি জানান, তৃতীয় ম্যাচে জয়ের জন্যই মাঠে নামবে তারা।

আল আমিন ইস্যু দলের মধ্যে কোনো অস্বস্তি তৈরি করছে না বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।   শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচকে সামনে রেখে বুধবার মেলবোর্ন স্টেডিয়ামের ইনডোরে অনুশীলন শেষে তিনি এসব কথা জানান। লংকানদের বিপক্ষে মুশফিকের খেলা নিয়ে কোন শঙ্কা নেই বলেও জানান মাশরাফি। তবে উইকেটের কথা বিবেচনা করে দলীয় একাদশে পরিবর্তন আসতে পারে বলে আভাস দেন নড়াইল এক্সপ্রেস।

এদিকে, উদ্বোধনী ম্যাচে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৯৮ রানের বিশাল হারে টুর্নামেন্ট শুরু হয় বর্তমান রানার্সআপ শ্রীলংকার। আফগানিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য ৪ উইকেটের জয়ে অবশ্য ঘুরে দাঁড়ায় লংকারা। জয়ের সেই ধারাবাহিকতা অব্যহত রাখতে চায় বাংলাদেশের বিপক্ষেও। তাইতো অনুশীলনে বাড়তি মনোযোগ ছিল দলের প্রত্যেক সদস্যের। স্বাভাবিক খেলাটা খেলতে পারলে জয় পাওয়া কঠিন হবেনা বলে মনে করছেন লংকান শিবির।  দুই দলের আগের ৩৭ মোকাবেলায় জয়ের পাল্লা ভারী শ্রীলংকার। লংকানদের ৩২ জয়ের বিপরীতে বাংলাদেশের জয় মাত্র ৪ ম্যাচে। অন্য ১ ম্যাচে কোন রেজাল্ট হয়নি।

অপরদিকে, এদিন সকালে মেলবোর্নের ক্রিকেট গ্রাউন্ড মাঠে অনুশীলন করেছে সাকিব-তামিমরা। যেখানে ইনজুরি কাটিয়ে দলের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মুশফিক ব্যাট হাত দীর্ঘক্ষণ অনুশীলন করেছেন। পাশাপাশি বল হাতে দলের সাথে যোগ দিয়েছেন দেশ থেকে উড়িয়ে নেয়া শফিউল ইসলামও।  এ সময় অধিনায়ক মাশরাফি বলেন, ‘আল-আমিন তার অন্যায়ের শাস্তি পেয়েছে। এর প্রভাব অবশ্যই দলের উপর পড়া উচিত নয়। আমার বিশ্বার আমারাই বিশ্বকাপের সবচেয়ে শৃঙ্খলাবদ্ধ দল। আমরা  এখন আগামী ম্যাচের জন্যই প্রস্তুত হচ্ছি। এর বাইরে আর কিছু ভাবার সময় আমাদের নেই।’

Facebook Comments
It's only fair to share...Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
0