রিয়ালকে হারিয়ে বার্সার জয়



Capture.JPG picপ্রথম এল ক্লাসিকোতে (২৫ অক্টোবরের ম্যাচ) লুইস সুয়ারেজ গোল না পেলেও দ্বিতীয় এল ক্লাসিকোতে তাঁর গোলেই নিজের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদকে হারিয়েছে বার্সেলোনা। রোববার রাতে লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদকে ২-১ গোলে হারায় মেসি-সুয়ারেজ-নেইমারদের দল।

খেলার ১৯ মিনিটে জেরেমি ম্যাথুই এবং ৫৬ মিনিটে সুয়ারেজ গোলে করেন। রিয়ালের হয়ে ৩১ মিনিটে একমাত্র গোলটি করেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এ জয়ের লিগে রোনালদোদের চেয়ে চার পয়েন্টে এগিয়ে গেল মেসি-নেইমাররা।

এ মৌসুমের প্রথম ‘এল ক্লাসিকো’য় প্রতিযোগিতামূলক লড়াইয়ে বার্সেলোনায় অভিষেক হয়েছিল লুইস সুয়ারেজের।  সেদিন গোল করতে পারেননি এই উরুগুইয়ান স্ট্রাইকার। বরং রিয়াল মাদ্রিদের মাঠে ৩-১ গোলে হেরে ফিরেছিল তার দল বার্সেলোনা।

তবে দ্বিতীয় ‘এল ক্লাসিকো’তে এসে তিনিই গোল করেই জেতালেন বার্সেলোনাকে। ফলে চির প্রতিদ্বন্দ্বীদের সঙ্গে প্রথম ‘ক্লাসিকো’তে হারের প্রতিশোধও নিয়েছে কাতালানরা।

সেই সঙ্গে লা লিগার পয়েন্ট টেবিলে ২৮ ম্যাচ খেলে সর্বোচ্চ ৬৮ পয়েন্ট অর্জন করেছে বার্সেলোনা। ২২ জয়ের পাশাপাশি দুটি ড্র আর চারটি পরাজয় রয়েছে বার্সার শিবিরে। অন্যদিকে সমান ম্যাচ খেলা রিয়ালের জয় বার্সার সমান। তবে, ৬টি ম্যাচ পরাজয়ের সাথে একটি মাত্র ড্রয়ে রিয়ালের অর্জিত পয়েন্ট ৬৪।

ম্যাচের ১২ মিনিটে করিম বেনজেমার ক্রস থেকে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর একটি শট ক্রসবারে লেগে ফিরে আসে। রিয়াল না পারলেও ঘরের মাঠে দর্শকদের গোল উপহার দিতে খুব বেশি সময় লাগেনি বার্সার। ১৯ মিনিটে গোল করে স্বাগতিক দর্শকদের আনন্দের জোয়ারে ভাসান জেরেমি ম্যাথুই।

এগিয়ে যাওয়ার আনন্দ অবশ্য বেশিক্ষণ উপভোগ করতে পারেনি বার্সা। ম্যাচের ৩১ মিনিটে রিয়ালকে ১-১ গোলে সমতায় ফেরান রোনালদো। ডি বক্সের বেনজেমার ‘ব্যাকহিল’ থেকে বল পেয়ে জালে জড়ান পর্তুগিজ তারকা।

৪০ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারতো রিয়াল। বার্সেলোনার ডি বক্সে জটলার মধ্যে থেকে গ্যারেথ বেল বল জালে পাঠিয়ে দেন। কিন্তু অফসাইডের কারণে গোলটি বাতিল করে দেন রেফারি। ফলে ১-১ গোলের সমতা নিয়ে বিরতিতে যায় দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দল।

দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণ আর পাল্টা-আক্রমণে খেলা আরো জমে ওঠে। এরই মাঝে ম্যাচের ৫৬ মিনিটে চমৎকার নৈপুণ্যে বার্সাকে এগিয়ে (২-১) দেন সুয়ারেজ। মাঝ মাঠের আগে থেকে ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার দানি আলভেজের উড়ে আসা বল অনেকটা দৌড়ে দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে রিয়াল গোলরক্ষক ইকার ক্যাসিয়াসকে পরাস্ত করেন উরুগুইয়ান তারকা।

এরপর বাকি সময়ে রিয়ালের খেলোয়াড়রা খানিকটা মেজাজ হারালে বেশ কিছু আক্রমণ চালান বার্সার খেলোয়াড়রা। ৬৭ মিনিটে রিয়ালের পাঁচ খেলোয়াড়ের বাধা ডিঙিয়ে বল নিয়ে গেলেও ক্রসবারের অনেক উপর দিয়ে বল উড়িয়ে মারেন ব্রাজিল তারকা নেইমার। ৮৬ মেসির বাড়ানো বল থেকে শট নেন জরদি আলবা। কিন্তু দারুণ দক্ষতায় শটটি ঠেকিয়ে দেন ক্যাসিয়াস। তবে শেষ পর্যন্ত ঠিকই ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন স্বাগতিক খেলোয়াড়রা।

 

Facebook Comments
It's only fair to share...Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
0