খালেদাকে হত্যার উদ্দেশ্যে হামলা- এমাজউদ্দীনঃ আনিসুল হকের নিন্দা প্রাকাশ



1ba3d19d1667a53b0c47456f5c613788_XLবিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে হামলার ঘটনায় উদ্বেগ ও নিন্দা জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র পদপ্রার্থী আনিসুল হক।

আজ (মঙ্গলবার) এক বিবৃতিতে আনিসুল হক বলেন, ‘এ ধরনের ঘটনার মাধ্যমে নির্বাচনী পরিবেশকে ঘোলাটে করা হচ্ছে, অস্থিতিশীল করা হচ্ছে। এর ফলে আমরা যাঁরা নির্বাচনী মাঠে আছি, নির্বাচন প্রক্রিয়ায় বিশ্বাস করি, জনগণের মতামতে বিশ্বাস করি, তাঁরাই ক্ষতিগ্রস্ত হব। সুবিধা নেবে নির্বাচন ও জনগণবিরোধী অপশক্তি।’ অবিলম্বে এ ঘটনার তদন্ত ও বিচার হওয়া উচিত বলেও মনে করেন এই মেয়র পদপ্রার্থী।

এদিকে, আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের আহ্বায়ক অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ অভিযোগ করে বলেছেন, খালেদা জিয়াকে হত্যার উদ্দেশ্যেই সোমবার তার গাড়িবহরে হামলা ও গুলি করা হয়েছে। গাড়ি বুলেটপ্রুফ হওয়ায় তিনি প্রাণে বেঁচে গেছেন।

আজ (মঙ্গলবার) সকালে পুরানা পল্টনে আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সাবেক এই ভিসি।

এমাজউদ্দীন আহমদ বলেন, বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় এসেছে, ছাত্রলীগের আল-আমিন হামলা করেছে। অথচ প্রধানমন্ত্রী এ হামলাকে নাটক বলে অভিহিত করেছেন, এটা দুঃখজনক। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার মন্ত্রীদের উস্কানিমূলক বক্তব্যের পর বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা হামলা করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

এমাজউদ্দিন আহমদ বলেন, ‘হামলার ঘটনায় সরকারের পক্ষ থেকে দুঃখবোধ হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু তা না করে খালেদা জিয়ার নিরাপত্তাকর্মীসহ ১০০ জনের বিরুদ্ধে উল্টো মামলা করা হয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনে আদর্শ ঢাকা আন্দোলনের সদস্য সচিব সাংবাদিক শওকত মাহমুদ বলেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ওপর হামলার ঘটনায় আমরা উদ্বিগ্ন। আমরা এ ঘটনার জন্য প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রীদের উস্কানিমূলক বক্তব্যকে দায়ী করছি।’ তিনি অভিযোগ করেন, ‘নির্বাচনে জয়-পরাজয় আছে। সরকার তাদের সমর্থিত প্রার্থীদের নিশ্চিত পরাজয় জেনে হামলা-মামলা শুরু করছে। বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীদের গ্রেফতার করছে। এ সব ঘটনা সুষ্ঠু নির্বাচনের পথে বাধা।’

নির্বাচন কমিশনের প্রতি সুষ্ঠু নির্বাচনী পরিবেশ সৃষ্টির আহ্বান জানিয়ে শওকত মাহমুদ বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য নির্বাচনের কয়েক দিন আগে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। এ ছাড়া সব কেন্দ্রে সিসি ক্যামেরা স্থাপন ও যে সব থানার ওসিরা সরকার সমর্থিত প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করছেন তাদের চিহ্নিত করে বদলি করার দাবিও জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ঢাবি শিক্ষক প্রফেসর মাহবুব উল্লাহ, সাবেক সচিব আ ন হ আকতার হোসেন, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কবি আবদুল হাই শিকদার, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান ও ন্যাপ মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া।

Facebook Comments
It's only fair to share...Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
0