International Mother Earth Day 2015



11178319_8138875587189ugihoinআমরা যে সুন্দর গ্রহটাতে বসবাস করি – এই পৃথিবী, সেটা এখন নানা ধরণের পরিবেশগত সমস্যায় জর্জরিত। গ্রিন হাউজ গ্যাস নিঃসরণ বাড়ছে বই কমছে না, পৃথিবীর তাপমাত্রাও বাড়ছে, মেরু অঞ্চলের বরফ গলছে। বায়ু দূষণ বাড়ছে, মানুষ সেটার কারণে নানা ধরণের রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। গ্লোবাল ওয়ার্মিং বাংলাদেশের মতো বদ্বীপের জন্য খুব ভয়ংকর একটা ব্যাপার হিসেবে দেখা দিয়েছে।

আমাদের বসবাস করার মতো গ্রহ এই একটাই – অন্য কোন জায়গা কিন্তু নেই আমাদের যাওয়ার জন্য। কাজেই এই পৃথিবীকে রক্ষা করার দায়িত্ব কিন্তু আমাদের সবার।

২০০৯ সালে জাতিসংঘ প্রতিবছর ২২ এপ্রিলকে আন্তর্জাতিক ধরণী দিবস – International Mother Earth Day হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নেয়, যদিও Earth Day Network ১৯৭০ সাল থেকেই এই দিনটি Earth Day হিসেবে পালন করে আসছে। প্রতি বছর ১৯২টিরও বেশি দেশে নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালিত হয় এই দিনটি।

বাংলাদেশে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি (এসপিএসবি) এবছর দিবসটি উদযাপন করবে। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে হাই স্কুল এবং কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে পাবলিক লেকচার এবং কুইজ প্রতিযোগিতার।

১. কুইজ প্রতিযোগিতা
কুইজ প্রতিযোগিতাটি ক্লাস ৬ থেকে ক্লাস ১০ এর শিক্ষার্থীদের জন্য। এসপিএসবির ওয়েবসাইটে নিচের লিংকে গিয়ে কুইজটিতে অংশ নিতে হবে। কুইজে অংশ নেয়ার শেষ সময় ২১ এপ্রিল সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত। মোট ২০টি প্রশ্ন আছে এখানে।

সর্বোচ্চ সংখ্যক সঠিক উত্তরের ওপর ভিত্তি করে মোট ৩ জনকে (প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয়) পুরষ্কার দেয়া হবে কুইজে। পুরষ্কার হিসেবে থাকছে বই এবং সার্টিফিকেট। পুরষ্কার দেয়া হবে ২২ এপ্রিল, বুধবার, এসপিএসবি কার্যালয়ে। সময় পরে জানিয়ে দেয়া হবে।

কুইজের লিংক:  http://www.spsb.org/earthday2015
২. রিনিউয়েবল এনার্জি বা নবায়নযোগ্য শক্তি নিয়ে পাবলিক লেকচার
ক্লাস ৮ থেকে ক্লাস ১২ (উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বছর) পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে রিনিউয়েবল এনার্জি বা নবায়নযোগ্য শক্তি নিয়ে একটি বক্তৃতা বা লেকচারের। পৃথিবীতে দিন দিন চেষ্টা করা হচ্ছে ফসিল ফুয়েল, যেমন- পেট্রোল, ডিজেল, অকটেন, কয়লা ইত্যাদির ব্যাবহার কমিয়ে সূর্যের আলো, পানি, বাতাস ইত্যাদি ব্যাবহার করে কীভাবে শক্তির চাহিদা পূরণ করা যায়। বিভিন্ন দেশেই সোলার সেল, উইন্ড মিল ইত্যাদি ব্যাবহার করে বিদ্যুৎ উৎপাদনের পরিমাণ দিন দিন বাড়ানো হচ্ছে, এমনকি বাংলাদেশেও। নবায়নযোগ্য শক্তির সুবিধা হচ্ছে, এটিতে পরিবেশ দূষণের পরিমাণ একেবারেও নগণ্য, এবং এটি কখনোই শেষ হবে না – এককথায় শক্তির অফুরন্ত উৎস হচ্ছে এধরণের শক্তি।

রিনিউয়েবল এনার্জি নিয়ে লেকচারটি অনুষ্ঠিত হবে এসপিএসবি ওয়ার্কশপ রুমে, ২২ এপ্রিল বিকেল ৫টায়। জায়গা সীমিত বিধায় এই লেকচারটিতে অংশ নেয়ার জন্য নিচের ছোট্ট ফর্মটি পূরণ করে রেজস্ট্রেশন করতে হবে। যারা নির্বাচিত হবে, তাদের সাথে ২১ এপ্রিলের মাঝেই যোগাযোগ করে জানিয়ে দেয়া হবে।
ফর্মের লিংক: http://goo.gl/forms/y6Bc7tQR99

Facebook Comments
It's only fair to share...Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
0