জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনে গুরুত্ব পেল ইউক্রেন ও জলবায়ু পরিবর্তন



g8অনেক বিষয় নিয়েই আলোচনা হয়েছে৷ তবে জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনে প্রত্যাশিতভাবেই বেশি গুরুত্ব পেয়েছে ইউক্রেন ও রাশিয়া প্রসঙ্গ৷ বাভারিয়ায় শেষ হওয়া সম্মেলনে জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়েও কিছু সিদ্ধান্ত হয়েছে।

চলতি শতক শেষ হবার আগে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ন্ত্রণ এবং জীবাস্ম জ্বালানি ব্যবহার কমানোর মাধ্যমে বিশ্ব উষ্ণায়ণ ২ ডিগ্রির নীচে রাখার লক্ষ্যমাত্রাও স্থির করা হয়েছে৷ জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ দেশগুলোতে তেল, গ্যাস এবং কয়লার পরিবর্তে বিকল্প জ্বালানি ব্যবহার বাড়াতে ১০০ বিলিয়ন ডলার (৯০ বিলিয়ন ইউরো) বরাদ্দের অঙ্গীকার আগেই করেছিল জি-৭৷

এ সম্মেলনেও সেই অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত হয়েছে৷  উন্নয়নশীল দেশগুলোর অপুষ্টি আর ক্ষুধায় আক্রান্ত অন্তত ৫০ কোটি মানুষকে ২০৩০ সালের মধ্যে দারিদ্র্যমুক্ত করার অঙ্গীকারের কথাও শোনা গেছে জি-৭ শীর্ষ সম্মেলনে৷ ওবামা-ম্যার্কেলরা অবশ্য এই লক্ষ্য পূরণের জন্য অর্থ বরাদ্দের ঘোষণা দেননি৷

Facebook Comments
It's only fair to share...Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
0