ফ্লাডলাইটের আলোতে টেস্ট ম্যাচ



Day-Night-Test-Matchঅ্যাডিলেডে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে শুরু হতে যাওয়া আগামীকালের টেস্ট ম্যাচটি হবে দিবারাত্রির, এর ফলে আগামীকাল থেকে নতুন একটা অধ্যায়ে প্রবেশ করতে যাচ্ছে টেস্ট ক্রিকেট।

ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি অনুমোদন দিয়েছে ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টির মতো দিবা-রাত্রি টেস্ট ক্রিকেট আয়োজনের। আইসিসির নতুন এই নিয়ম ঘোষণার পর রীতিমত হইচই পড়ে গেছে ক্রিকেট বিশ্বে। অ্যাডিলেডের কালকের টেস্টটি কেমন যায় তার ওপরই নির্ভর করছে সব কিছু।

সাত বছর আগে ভাবনাটা প্রথম এসেছিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সিও জেমস্‌ সাদারল্যান্ডের মাথায়, কৃত্রিম আলোতে টেস্ট ক্রিকেট খেলার ভাবনা। আর আনুষ্ঠানিকভাবে এই ভাবনাটা নিয়ে কথাবার্তা শুরু হয়েছিল ২০০৯ সালে। সে বছরের জুলাইতে লর্ডসে অনুষ্ঠিত এমসিসি ওয়ার্ল্ড ক্রিকেট কমিটির সভায় দিবা-রাত্রির টেস্ট আয়োজনের ব্যাপারে গুরুত্বপূর্ণ কিছু আলোচনা হয়। টি-টুয়েন্টি আর ওয়ানডে’র জনপ্রিয়তার যুগে টেস্ট ক্রিকেটে আরো দর্শক টানতেই কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছিল এরকম কিছু একটা করার। এই ধারণাটিকে আরও এগিয়ে নিতে চায় ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়ার ও নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।

এই প্রস্তাবটা যারা করেছিল, আইসিসির সেই ক্রিকেট কমিটির অন্যতম সদস্য ও অস্ট্রেলিয়ার কোচ ড্যারেন লেম্যান আশা প্রকাশ করে বলেন, ‘সময়ই বলবে এটা সঠিক না ভুল সিদ্ধান্ত। কিন্তু আমাদের নতুন কিছু চেষ্টা করে তো দেখতে হবে। আমি মনে করি এটি টেস্ট ক্রিকেটের একটা গুরুত্বপূর্ণ বিবর্তন হতে পারে।’

‘সময়ের সঙ্গে পরিবর্তন হচ্ছে সবকিছু পরিবর্তন আসছে ক্রিকেটও। আইসিসি দিবা-রাত্রির টেস্ট ম্যাচ আয়োজনের অনুমোদন দেয়ায় খেলা দেখার সুযোগ পাচ্ছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা। টেলিভিশনে সঠিক সময়ে ক্রিকেটপ্রেমীরা এই লংভার্সনের ক্রিকেট উপভোগ করতে পারবেন। এতে ম্যাচের মান আরও বৃদ্ধি পাবে।’ সূত্র: ক্রিকইনফো।

Facebook Comments
It's only fair to share...Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
0