মালেশিয়ায় শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীর পুরস্কার পেলা বাংলাদেশি শিক্ষার্থী



zabirইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটি মালয়েশিয়ার (আইআইইউএম) ২০১৪-২০১৫ শিক্ষাবর্ষে শ্রেষ্ঠ শিক্ষার্থীর পুরস্কার পেয়েছে বাংলাদেশের এক মেধাবী শিক্ষার্থী জাবির আবেদিন। গত ৭ই নভেম্বর শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩১তম সমাবর্তনে তাকে বেস্ট ওভার অল স্টুডেন্ট অব ইউনিভার্সিটি অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে মালয়েশিয়ার পাহাং প্রদেশের সুলতান হাজি আহমদ শাহ উপস্থিত ছিলেন এবং তিনি  জাবির এর হাতে এ পুরস্কার তুলে দেন। এই অনুষ্ঠানে জাবির আবেদিন ব্যাচেলর শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিত্ব করে বিদায়ী বক্তব্য দেন।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের বেস্ট স্টুডেন্ট ওভার অল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট পুরস্কারও পেয়েছেন। ৯ নভেম্বর এই পুরস্কার তার হাতে তুলে দেন আইআইইউএমের রেক্টর (উপাচার্য) প্রফেসর দাতু ড. জালেহা কামারুদ্দিন।

জাবির আবেদিন এই  বিশ্ববিদ্যালয়ে ব্যাচেলর অব ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে (মেকাট্রোনিক্স) পড়াশোনা করেন। তিনি বেস্ট ওভার অল স্টুডেন্ট অ্যাওয়ার্ড অব ইউনিভার্সিটি, বেস্ট স্টুডেন্ট ওভার অল ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্ট ও বেস্ট স্টুডেন্ট ব্যাচেলর অব ইঞ্জিনিয়ারিং (মেকাট্রোনিক্স) পুরস্কার পেয়েছেন।

পড়ালেখার পাশাপাশি জাবির আবেদিন বিতর্কেও সমান পারদর্শী। তিনি বিভিন্ন দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বিতর্ক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে ওআইসি ইন্টারভার্সিটি ডিবেটিং চ্যাম্পিয়নশিপ, মালয়েশিয়ান রয়্যালস ডিবেটিং চ্যাম্পিয়নশিপ, ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি ডিবেটিং চ্যাম্পিয়নশিপ (ফিলিপাইন), অস্ট্রাল-এশিয়ান ইন্টারভার্সিটি ডিবেটিং চ্যাম্পিয়নশিপ (নিউজিল্যান্ড), ইউনাইটেড এশিয়ান ডিবেটিং চ্যাম্পিয়নশিপ (চীনের ম্যাকাও) ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

তিনি বলেন, ভালো ফলাফলের জন্য অবশ্যই প্রথমে বাবা-মা ও পরিবারকে ধন্যবাদ জানাই। আর ডিপার্টমেন্টের শিক্ষক ও বন্ধুদের কাছ থেকে অনেক সহযোগিতা পেয়েছি। এ জন্য তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। শিক্ষা জীবনে ভালো ফলাফলের জন্য টাইম ম্যানেজমেন্ট ও কঠোর পরিশ্রম খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন জাবির। ভবিষ্যতে সে অস্ট্রেলিয়া, কানাডা বা জাপানের বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চতর ডিগ্রি নিতে আগ্রহী।

জয়নাল আবেদিন ও সোহেলা ইয়াসমিন দম্পতির তিন ছেলে ও এক মেয়ের মধ্যে জাবির আবেদিন দ্বিতীয়। তার জন্ম ১৯৯৩ সালে বাহরাইনের সালমানিয়াতে। সেখানকার দ্য ইন্ডিয়ান স্কুল থেকে মাধ্যমিক (২০০৮) ও উচ্চ মাধ্যমিক (২০১০) পাস করেন। তার পৈতৃক বাড়ি ফেনীর দাগনভূঞা উপজেলায়।

Facebook Comments
It's only fair to share...Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
0