“হ্যালো” গান নিয়ে অ্যাডেলের বিশ্বমাত



02_23102826_39e8cf_2534759aব্রিটিশ সংগীতশিল্পী অ্যাডেল তার “হ্যালো” গান নিয়ে বিশ্বমাত করেছেন। অ্যাডেল একের পর এক নতুন রেকর্ড গড়ছেন এই গান নিয়ে। টানা দুই সপ্তাহ ধরে ‘হ্যালো’ গানটির সুবাদে বিলবোর্ড টপচার্টের শীর্ষে রয়েছেন তিনি। ‘স্কাইফল’ খ্যাত অস্কারজয়ী অ্যাডেলের ‘হ্যালো’ গানটি ২৩ অক্টোবর মুক্তি পায়। যুক্তরাজ্য ছাড়াও অন্যান্য ২৬টি দেশের টপচার্টে গানটি জায়গা করে নিয়েছে।

এদিকে, ‘হ্যালো’র মিউজিক ভিডিওটিতে অ্যাডেলের সঙ্গে অভিনয় করেছেন ত্রিস্তান ওয়াইল্ডস। আবার এরই মধ্যে ‘হ্যালো’ গানটি ইউটিউবে ৪৩ কোটি বারের বেশি দেখা হয়েছে। ইউটিউবে ‘হ্যালো’ গানটি টপচার্টের বাইরেও নতুন দুইটি রেকর্ড সৃষ্টি করেছে। মুক্তির ২৪ ঘণ্টায় হ্যালো গানটি দেখা হয়েছে ২৮ মিলিয়ন বার এবং তা সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে ১০০ মিলিয়নের মাইলফলক স্পর্শ করেছে।

লিওনেল রিচি ১৯৮৪ সালে গানে গানে প্রশ্ন করেছিলেন, ‘হ্যালো, তুমি কি আমাকেই খুঁজছ?’ ৩০ বছর পর সেই প্রশ্নের উত্তরই মনে হয় দিলেন এই বিট্রিশ গায়িকা। বললেন, ললেন, ‘হ্যাঁ, আমিই সেই।’ এ মাসের ২০ তারিখে বের হয় অ্যাডেলের তিন নম্বর স্টুডিও অ্যালবাম ‘টোয়েন্টিফাইভ’। গোটা অ্যালবাম রিলিজের আগে সিঙ্গেলস হিসেবে একটি গানই বেরিয়েছিল, হ্যালো। গানে গানে সেখানে অ্যাডেল যেন উত্তর দিচ্ছেন কারো টেলিফোন আলাপে।

1401x788-GettyImages-162588830এই যান্ত্রিক নির্ভরতার যুগে, যেখানে সম্পর্ক ভাঙে আর গড়ে মুঠোফোনে, সেই সময়ে অ্যাডেলের এই গানটা একদমই সমকালীন। গ্রেগ কারস্টিনের সঙ্গে মিলে গায়িকা নিজেই লিখেছেন গানের কথা। তাতেই সুরে সুরে বলছেন, ‘হ্যালো, আমি সেই। ভাবছিলাম, এতটা বছর পর তুমি কি চাইবে দেখা করতে/ভুলে গিয়ে সব কিছু/লোকে বলে, সময় নাকি সব কিছু ভুলিয়ে দেয়/কিন্তু মনে হচ্ছে আমি তোমাকে ভুলতে পারিনি।’ গানটা শুনতে গেলে আগ্রহী শ্রোতার কান বারবার যেন খুঁজে পাবে লিওনেল রিচিকে। মনে হবে, এই আলাপের একটা অংশ তো আমরা শুনেছি রিচির গলায়, ‘তুমি কি আমাকেই খুঁজছ? তোমার চোখে আমি দেখেছি সেই ইচ্ছা, তোমার হাসিতে আমি তা দেখেছি, এটাই তো আমি চেয়েছিলাম।’ এখন দেখার বিষয় অ্যাডেলের এই জয়যাত্রা কোথায় গিয়ে থামে ?

এম এম হাসান##1

Facebook Comments
It's only fair to share...Share on Facebook
Facebook
0Share on Google+
Google+
0Tweet about this on Twitter
Twitter
Share on LinkedIn
Linkedin
0